banner-ad
lakshmipurtimes

বিদেশি ওয়েবসাইটের নেতিবাচকতা পর্যটনশিল্পের অন্তরায়


২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৮ বৃহস্পতিবার, ০৭:০৫  পিএম

ডেস্ক রিপোর্ট

লক্ষ্মীপুর টাইমস অ - ..... অ+


বিদেশি ওয়েবসাইটের নেতিবাচকতা পর্যটনশিল্পের অন্তরায়

দেশের সব ট্যুরিস্ট স্পটগুলোর তথ্য পর্যটন মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে নিয়মিত হালনাগাদ করার ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন পর্যটন বিশেষজ্ঞরা।

বৃহস্পতিবার (২৭ সেপ্টেম্বর) বিকেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজনেস অনুষদের অধ্যাপক ড. আব্দুল্লাহ ফারুক সম্মেলন কক্ষে এক গোলটেবিল আলোচনায় বক্তারা এ গুরুত্বারোপ করেন।

পর্যটন ও ডিজিটাল রূপান্তর শীর্ষক এ আলোচনার আয়োজন করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ট্যুরিজম ও হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগ। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী একেএম শাহাজাহান কামাল।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বেসামরিক বিমান ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান কর্নেল (অব.) ফারুক খান। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ঢাবির ট্যুরিজম ও হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. আফজাল হোসেন।

এতে তিনি বলেন, পর্যটন শিল্পে ডিজিটাল রূপান্তর গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। ডিজিটাল ব্যবস্থায় সব স্টেকহোল্ডার খুব সহজে, দ্রুত ও সর্বনিম্ন ব্যয়ে যোগাযোগ, লেনদেন এবং সংবাদ উপস্থাপন করতে পারবে। ডিজিটাল প্রযুক্তির উদ্ভাবন পর্যটনের অবিরাম ও অন্তর্ভুক্তিমূলক অগ্রযাত্রা নিশ্চিত করে টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্য অর্জনে সাহায্য করবে।

পরে আলোচনায় অংশ নেন ইনভেস্টমেন্ট করপোরেশন অব বাংলাদেশের (আইসিবি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মজিব উদ্দীন আহমেদ, বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশনের চেয়ারম্যান আখতারুজ জামান খান কবির, পর্যটন বোর্ডের প্রধান নির্বাহী মো. জাহাঙ্গীর হোসেন, বাংলানিউজের লাইফস্টাইল এডিটর শারমিনা ইসলাম প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, আমাদের দেশের সব ট্যুরিস্ট স্পটগুলোকে এখনো ওয়েবসাইটে অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি। যেগুলো আছে সেগুলো হালনাগাদ করা হয় না। স্পটগুলোর ছুটির দিন, পরিবেশ থেকে শুরু করে সবকিছুই  ওয়েবসাইটের আওতায় আনতে হবে। তাহলে পর্যটকদের আকৃষ্ট করবে।

গোলটেবিল আলোচনায় পর্যটনমন্ত্রী শাজাহান কামাল (ডান থেকে প্রথম)/ছবি: বাদলবিদেশি ওয়েবসাইটে বাংলাদেশ নিয়ে নেতিবাচক প্রসঙ্গ এনে বক্তারা বলেন, দেশের বিভিন্ন পরিস্থিতিতে বিদেশি ওয়েবসাইটে বাংলাদেশের পর্যটন নিয়ে নেতিবাচক প্রচারণা চালানো হয়। নিরাপত্তা ইস্যুতে অতিমাত্রায় ভীতিকর পরিস্থিতি তৈরি করা হয় পর্যটকদের জন্য। এতে বিদেশি পর্যটকরা বাংলাদেশে আসতে আগ্রহ হারিয়ে ফেলছে। এ বিষয়ে মন্ত্রণালয়ের সুনির্দিষ্ট পদক্ষেপ থাকা দরকার।

বেসামরিক বিমান ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মহিবুল হক বলেন, ওয়েবসাইট হালনাগাদ করার কোনো বিকল্প নেই। বিদেশে নেতিবাচক প্রচারণা আন্তর্জাতিক রাজনীতির অংশ। এ নিয়ে আমরা দূতাবাসগুলোর সঙ্গে মতবিনিময় করবো।

বাংলানিউজের লাইফস্টাইল এডিটর শারমীনা ইসলাম বলেন, পর্যটন সংক্রান্ত সব সংবাদ পরিবেশনে অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে বাংলানিউজ। ছোট-বড় সব পর্যটন স্পট নিয়ে বাংলানিউজ সংবাদ পরিবেশন করে দেশের মানুষকে পর্যটনমুখী করার চেষ্টা করছে।

পর্যটন দিবস উপলক্ষে আয়োজিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মসূচির মিডিয়া পার্টনার হিসেবে রয়েছে দেশের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় অনলাইন পোর্টাল বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম।

সূত্র:বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম।

আপনার মন্তব্য লিখুন:

জাতীয় এর সর্বশেষ



অন্যান্য বিভাগ

-->