• ঢাকা
  • বুধবার, ০৮ জুলাই, ২০২০, ২৪ আষাঢ় ১৪২৭
Safe Diagnostic Center

পোশাকশিল্পে চোর-পুলিশ খেলা চলছে, অভিযোগ শ্রমিকদের


লক্ষ্মীপুর টাইমস | অনলাইন ডেক্স; প্রকাশিত: জুন ৮, ২০২০, ০১:১৫ পিএম পোশাকশিল্পে চোর-পুলিশ খেলা চলছে, অভিযোগ শ্রমিকদের

বাংলাদেশ পোশাক প্রস্তুতকারক ও রপ্তানিকারক সমিতি (বিজিএমইএ) সরকারের কাছ থেকে প্রণোদনা নিয়েও শতভাগ শ্রমিকের বেতন দেয়নি। অনেক কারখানায় বেতন-বোনাস হয়নি। ত্রিপক্ষীয় সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে কোনো শ্রমিক ছাঁটাই হবে না, সেটাও মানেননি মালিকপক্ষ।’


‘এখন বলা হচ্ছে শ্রমিক ছাঁটাইয়ের কথা। নানা অজুহাতে সরকারের কাছ থেকে সুবিধা নিলেও তারা শ্রমিকবান্ধব হননি। মালিকের ইচ্ছে মাফিক সিদ্ধান্তে যেন পোশাকখাতে চোর পুলিশের খেলা হচ্ছে।’
php glass

সোমবার (০৮ জুন) লকডাউন পরিস্থিতিতে হাজার হাজার শ্রমিক ছাঁটাই, নতুন করে ছাঁটাইয়ের আশঙ্কাসহ পোশাকশিল্পের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে টেক্সটাইল গার্মেন্টস ওয়ার্কার্স ফেডারেশন আয়োজিত সমাবেশে এ অভিযোগ করেন শ্রমিক নেতারা।

সমাবেশে শ্রমিক নেতা আবুল হোসাইন বলেন, গত ত্রিপক্ষীয় (সরকার, মালিক, শ্রমিক) বৈঠকে বলা হয়েছিল, করোনাকালে কোনো ছাঁটাই করা হবে না। করোনার মধ্যেও শ্রমিকরা জীবন বাজি রেখে শত শত মাইল পথ পাড়ি দিয়ে কারখানায় এসেছেন। কারখানায় উৎপাদন অব্যাহত রাখতে কাজ করছেন।

‘কিন্তু বিজিএমইএ সভাপতি ড. রুবানা হকের মতে, চলতি মাস থেকেই শ্রমিক ছাঁটাই হবে। তাদের কারখানায় নাকি ক্যাপাসিটি ৫৫ শতাংশ কমেছে, ক্রয়াদেশ বাতিল হয়েছে। তাহলে কেনো শ্রমিকদের ডেকে ডেকে কাজে আনলেন। রুবানা হক যেটা বলেছেন, সেটাতে শ্রমিকরা মর্মাহত। আগুনে ঘি ঢেলে দেওয়ার মতো।’

তিনি বলেন, বিজিএমইএ সভাপতির বক্তব্যে এ শিল্পে অস্থিরতা তৈরি হবে। শ্রমিক অসন্তোষের মতো কোনো ঘটনা ঘটলে এর দায়ভার বিজিএমইএ এবং বিজিএমইএ সভাপতি ড. রুবানা হককে নিতে হবে। মালিকপক্ষের বক্তব্যে শিল্পের অস্থিরতা তৈরি হলে এর দায়বার বিজিএমইএ এবং বিজিএমইএ সভাপতিকেই নিতে হবে।

‘শ্রমিক ছাঁটাইয়ের আইন আছে। আমি শ্রমিক ছাঁটাইয়ের এমন ঘোষণার নিন্দা জানাই। রুবানা হক নারী হয়েও নারীদের দুঃখ বুঝতে পারেননি। তিনি মালিকের স্বার্থ উদ্ধারে ব্যস্ত।’

টেক্সটাইল গার্মেন্টস ওয়ার্কার্স ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় নেতা নাজমা বেগম বলেন, মালিকরা শ্রমিকদের মাধ্যমে অর্থের মালিক হচ্ছেন। অথচ তারা শ্রমিকবান্ধব হননি আজও। এ অবস্থায় শ্রমিকদের অধিকার শ্রমিকদের আদায় করতে হবে। আমরা রাজপথে আছি, থাকব।

সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক তপন সাহার পরিচালনায় এতে আরও বক্তব্য রাখেন শ্রমিক নেতা পারভিন, শাহ আলম, জাহিদুল ইসলাম বাদশা প্রমুখ।
সূত্র: বাংলানিউজটুয়েন্টিফোর 

Side banner